২৫ হাজার টাকা করে পাচ্ছে ৩০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, দেখুন তালিকা

বিশেষ অনুদানের ২৫ হাজার টাকা পাচ্ছে ৩০০টি মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠান ও ৮ হাজার ৩৬ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থীর বিশেষ অনুদান বাবদ ৫ কোটি টাকা ছাড় করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদারাসা শিক্ষা বিভাগ।

ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদের’ মাধ্যমে এ টাকা বিতরণ করা হবে। গতকাল বুধবার (৩০ জুন) মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদারাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে বিষয়টি জানিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।

জানা গেছে, ৩০০টি প্রতিষ্ঠান ২৫ হাজার টাকা করে পেয়েছেন। ৫০০ জন শিক্ষক কর্মচারী পেয়েছেন ১০ হাজার টাকা করে। ১ম থেমে ৫ম শ্রেণির ইবতেদায়ি শাখার ১ হাজার ২৫০ জন শিক্ষার্থী ৩ হাজার

টাকা করে, ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণির দাখিল ও ভোকেশনাল শাখার ৪ হাজার ৫০১ জন ছাত্রছাত্রী ৫ হাজার টাকা করে এবং আলিম-বিএম-ডিপ্লোমা শাখার ১ হাজার ২৫০ জন ছাত্রছাত্রীকে ৬ হাজার টাকা করে এবং কামিল-ফাজিলসহ তদুর্ধ্ব পর্যায়ের ৫৩৫ জন শিক্ষার্থীকে ৭ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয় বলছে, নগদ মনোনিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের নামের তালিকা অনুসারে এ টাকা বিতরণ করবে। বিতরণ শেষে বিস্তারিত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে দাখিল করবে। কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক কর্মচারী বা শিক্ষার্থীর

নাম একাধিক বার মঞ্জুরি হয়ে থাকলে একটি মঞ্জুরির বিপরীতে অনুদানের টাকা পাবেন। আর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুকুলে বরাদ্দ করা টাকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসেবে পাঠানো হবে।

বিশেষ অনুদানের ২৫ হাজার টাকা পাচ্ছে ৩০০টি মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠান ও ৮ হাজার ৩৬ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থীর বিশেষ অনুদান বাবদ ৫ কোটি টাকা ছাড় করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদারাসা শিক্ষা বিভাগ।

ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদের’ মাধ্যমে এ টাকা বিতরণ করা হবে। গতকাল বুধবার (৩০ জুন) মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদারাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে বিষয়টি জানিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।

জানা গেছে, ৩০০টি প্রতিষ্ঠান ২৫ হাজার টাকা করে পেয়েছেন। ৫০০ জন শিক্ষক কর্মচারী পেয়েছেন ১০ হাজার টাকা করে। ১ম থেমে ৫ম শ্রেণির ইবতেদায়ি শাখার ১ হাজার ২৫০ জন শিক্ষার্থী ৩ হাজার

টাকা করে, ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণির দাখিল ও ভোকেশনাল শাখার ৪ হাজার ৫০১ জন ছাত্রছাত্রী ৫ হাজার টাকা করে এবং আলিম-বিএম-ডিপ্লোমা শাখার ১ হাজার ২৫০ জন ছাত্রছাত্রীকে ৬ হাজার টাকা করে এবং কামিল-ফাজিলসহ তদুর্ধ্ব পর্যায়ের ৫৩৫ জন শিক্ষার্থীকে ৭ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয় বলছে, নগদ মনোনিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের নামের তালিকা অনুসারে এ টাকা বিতরণ করবে। বিতরণ শেষে বিস্তারিত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে দাখিল করবে। কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক কর্মচারী বা শিক্ষার্থীর

নাম একাধিক বার মঞ্জুরি হয়ে থাকলে একটি মঞ্জুরির বিপরীতে অনুদানের টাকা পাবেন। আর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুকুলে বরাদ্দ করা টাকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসেবে পাঠানো হবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*